ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের দশদিনে চিরুনি অভিযানে আজ গুলশানের শাহজাদপুর এ অভিযান পরিচালিত হচ্ছে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের এডিসের বিরুদ্ধে যে বিশেষ চিরুনি অভিযান চলছে তারা আজ দ্বিতীয় দিন টিকে রয়েছে রাজধানীর শাহজাদপুরে এলাকায় এবং এখানে এসে আমরা দেখছি যে গতকালকে শুরু হয়েছে গত কালকের আজকের যদি অভিজ্ঞতার কথা আমরা বলি তবে দেখা যাচ্ছে যে নির্মাণাধীন ভবন গুলো রয়েছে ,সেই ভবনগুলি হচ্ছে সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ এর বিরুদ্ধে যুদ্ধ জয় । আমরা এখানে এসে যেমন দেখছি যে নির্মাণাধীন ভবনের জেলি তৈরির যে ফাঁকা জায়গা টিকে থাকে সেই জায়গাতে আমরা অনেক পানি জমে আছে স্বচ্ছ পানি জমে আছে এবং এখানকার অভিযানে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সরকারি স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপ প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের তারা যেমনটা বলছেন যে এই নির্মাণাধীন ভবন এবং যেসব নির্মাণাধীন উন্নয়ন প্রকল্প রয়েছে সেগুলোর কিন্তু কাজ বন্ধ রয়েছে দীর্ঘদিন থেকে এবং সেখানেই স্বচ্ছ পানি জমছে এবং সেই পানিতে এর বংশ বিস্তার করার কি থেকে উর্বর ক্ষেত্র গুলো।


এখন সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ এবং তারা অভিযানে এসেছে আমরা আমাদের কে বলছেন যে এই কার্যক্রম তারা নির্ভীকভাবে পরিচালনা করবেন তবে সব থেকে জরুরি হচ্ছে নাগরিকদের সচেতন নাগরিকরা যারা রয়েছেন নগরবাসী তারা যদি ব্যক্তি উদ্যোগে তাদের বাড়ির আশপাশে জমে থাকা পানি পরিষ্কার করে নেন তিন দিনের বেশি পানি জমা দেন সেক্ষেত্রে কিন্তু এর বিরুদ্ধে অভিযান সামনে যে শঙ্কা সেই শঙ্কা থেকে কিন্তু মুক্তি পাওয়ার হলেও কিছুটা হলেও স্বস্তি পাওয়া যাবে বলে তারা ধারণা করছেন এবং এক্ষেত্রে তিনি রয়েছেন তাদের সঙ্গে আমাদের কথা বলছে তারা বলছেন যে তারা একই সঙ্গে কিন্তু দুটি অভিযান চলছে আমরা যেমনটা দেখেছি গত 10 মে অভিযান শুরু হয়েছিল ভ্রাম্যমান আদালতের বিরুদ্ধে এবং তা গতকাল থেকে ১০ দিনব্যাপী শুরু হয়েছে চিরুনি অভিযান অর্থাৎ পাশাপাশি দুটি অভিযান পরিচালনা করছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে বারবার বলা হচ্ছে যে যতদিন পর্যন্ত এই অপশনটা যখন রয়েছে অর্থাৎ গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি এই মৌসুমে জাতি বংশ বিস্তার করতে না পারে সেজন্য তারা তাদের অভিযান কিন্তু সর্বাত্মকভাবে চালিয়ে যাবেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের বিচ্ছিন্ন অভিযান অভিযানের সবশেষ খবর ।

Post a Comment

Previous Post Next Post